Untitled

বইটির সারসংক্ষেপ:
বাঙালির সাংগঠনিক প্রতিভা কেন কম? কেন বাঙালির সংগঠন টেকে না? এই প্রশ্নের উত্তর খুঁজছেন এমন একজন বাঙালি, যিনি নিজে গড়ে তুলেছেন এক অনন্য-উদাহরণ, সংগঠন, বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্র-গড়ে তুলেছেন, টিকিয়ে রেখেছেন বিকাশমান। কিন্তু এ-গ্রন্থ তাঁর সংগঠন গড়ে তোলার অভিজ্ঞতার বয়ান নয়, এ হচ্ছে একজন অভিজ্ঞ ও প্রশ্নশীল, মননশীল, প্রাজ্ঞ মানুষের নিজের ভেতরে জেগে ওঠা সওয়ালের জবাব ঢুঁড়ে ফেরা, ইতিহাসের মধ্যে, সাহিত্যের মধ্যে, সমাজের মধ্যে এবং নিজের জীবন ও নিজের চারপাশের মধ্যে। মৌলিকভাবেই এ-প্রশ্ন তিনি তুলেছেন, এবং মৌলিকভাবেই এ-প্রশ্নের উত্তর অন্বেষণ করে গেছেন, ফলে আমরা লাভ করেছি একটা প্রায়-দার্শনিক গ্রন্থ। বেদনা, ভালোবাসা আর প্রজ্ঞার সঙ্গে আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ লক্ষ করেছেন, বাঙালির সাংগঠনিক দুর্বলতার কারণ তার আত্মপরতা, অসহায়তা, আত্মঘাত আর ঊনস্বাস্থ। তিনি খূঁজেছেন এই কারণগুলোর বিদ্যমানতার কারণ। লক্ষ করেছেন আমাদের ইতিহাস সমষ্টির চেয়ে ব্যক্তি কীভাবে প্রধান হয়ে উঠেছে। চিন্তা আর ভাব, প্রশ্ন আর প্রেম, যক্তি আর শিল্পের সমাহারের অপূর্ব নিদর্শন এই গ্রন্থ, একই সঙ্গে চিন্তা উদ্রেককারী, মনোহর ও প্রসাদগুণময়।

বইটি ডাউনলোড সম্পকে তথ্য


বইয়ের নাম:         সংগঠন ও বাঙালি
লেখকের নাম:       আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ

বাংলাদেশের বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী একজন সমাজসংস্কারক। তিনিমূলত শিক্ষাবিদ ও সাহিত্যিক। তিনি ষাট দশকের একজন প্রতিশ্রুতিময় কবি হিসেবে পরিচিত। সে সময় সমালোচক এবং সাহিত্য সম্পাদক হিসাবেও তিনি অনবদ্য অবদান রেখেছিলেন। কিন্তু ধীরে ধীরে তাঁর সাহিত্য প্রতিভার স্ফূরণ স্তিমিত হয়ে আসে। তবে আত্মজীবনীসহ নানাবিধ লেখালেখির মধ্য দিয়ে আজো তিনি স্বীয় লেখক পরিচিত বহাল রেখেছেন। তিনি একজন সুবক্তা। ১৯৭০ দশকে তিনি টিভি উপস্থাপক হিসাবে বিশেষ জনপ্রিয়তা অর্জন করেন। তাঁর জীবনের শ্রেষ্ঠ কীর্তি বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্র যা ত্রিশ বছর ধরে বাংলাদেশে আলোকিত মানুষ তৈরির কাজে নিয়োজিত রয়েছে।তিনি আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ।

আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ সম্পকে আরও জানতে এখানে ক্লিক করুন

সাইজ:                     ২.৬৮ মেগা
পৃষ্ঠা সংখ্যা:             ৪৪
আপলোড সার্ভার:   ড্রপবক্স

download_button1

ডাউনলোড এর সুবিধার জন্য  পিডিএফ ফাইলটি জিপ করা।এটা আনজিপ করতে “7zip” সফটটি ব্যাবহার করুন।আপনার পিসি বিট এর ধরন অনুযায়ী সফটটি “এখান” থেকে ডাউনলোড করুন।ডাউনলোড করতে কিংবা ফাইলটি ওপেন করতে কোন সমস্যা হলে “আমরা যারা বই পড়ি” গ্রুপে জানান।
বি:দ্র:ইবুকটির কপিরাইট ফ্রী।আপনি চাইলে এই বইটি যে কোথায় শেয়ার এবং প্রকাশ  করতে পারবেন।কিন্তু একটা বিশেষ অনুরোধ দয়া করে আমাদের গ্রুপের নাম এবং আমাদের ব্লগটির লিংক উল্লেখ করে দিয়েন।আর বইটি ভাল লাগলে অবশ্যই একটি মন্তব্য করার অনুরোধ রইল।মন্তব্য দিলে কি হবে জানেন??আমার ভাল লাগবে এবং অনেক উৎসাহ পাব পরবতীতে আরও বেশি বই স্ক্যান করে ইবুক তৈরীর  জন্য উৎসাহ পাব।

নতুন বইয়ের সম্পকে  জানতে

গ্রুপে জয়েন করুন

পেইজটি লাইক করুন